ঢাকা ০৬:১৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরে স্ত্রী ও শিশুসহ সাংবাদিককে মারপিটের অভিযোগ

ফরিদপুরে বাণিজ্যিক ভাবে অটো চার্জের বিদ্যুৎ বিল ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা করার বিষয়টি  ধরিয়ে দেওয়ায় স্ত্রী ও শিশসহ সাংবাদিককে মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এ বিষয়ে  ফরিদপুর সদরের কৈজুরি ইউনিয়নের কৈজুরি গ্রামের বাসিন্দা নুরুল ইসলামের ছেলে দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার ফরিদপুর প্রতিনিধি সাংবাদিক রবিউল হাসান (রাজিব) (৩৪) গত রাতে (২ জুলাই)  মো. জামাল মল্লিকসহ আট জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও পাঁচ-ছয়জনকে আসামি করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, কৈজুরি গ্রামের  মো. জামাল মল্লিক (৫৫) রবিউলের প্রতিবেশি। তিনি (জামাল) বাণিজ্যিক ভাবে অটো চার্জের বিদ্যুৎ বিল ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা করায় তিনি (রবিউল) পেশাগত দায়িত্ব পালন করে বিদ্যুৎ অফিসে এ ব্যাপারে অভিযোগ দেন। এতে বিবাদীরা তার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারার জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসিতেছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত মঙ্গলবার  বিকাল অনুমান ৩টার দিকে তার বসত বাড়ীর সামনে পাকা রাস্তার পাশে আখের আলীর মুদির দোকানের সামনে বিবাদীরা লাঠি তার হাত, পা, পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায়  পিটিয়ে ও কিল-ঘুষি এবং লাথি মেরে তাকে মারধোর করে।
তার চিৎকারে তার  স্ত্রী তানিয়া আক্তার (২৪) বাসা থেকে এগিয়ে এলে হামলাকারীরা তানিয়ার  চুলের মুঠি ধরে টানা হেচড়া করে এলোপাথাড়ীভাবে কিলঘুষি মারে। এ সময় তার শিশু কন্যা  রাফিয়া তাসনিম (৬) কান্নাকাটি করিলে হামলাকারীরা তাকে গলা ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়।
এ ঘটনায় সাংবাদিক রবিউল হাসান মঙ্গলবার রাতে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দেন।
রবিউল রাজিব জানায়, বিদ্যুৎ ফাঁকি দেওয়ার বিষয়টি তিনি প্রথম ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদারকে অবহিত করেন। গত ৩০ জুন বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীকে জানান। গত ১ জুলাই বিদ্যুৎ অফিসের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানী (ওজোপাডিকো) ফরিদপুরের বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ দুই এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিক তদন্তে কিছু অসংগতি চোখে পড়েছে।
কৈজুরি ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রাহাতুল হাসান  বলেন, মো. জামাল মল্লিক তার গ্যারেজে বাণিজ্যিক ভাবে ইজি বাইক চার্জ দেন। তার বিদ্যুৎ এর বিল নিয়ে অভিযোগ ওঠায় এ বিষয়টি তদন্ত হয়। এ কারনে জামাল ও নারী পুরুষ মিলে তার পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিক রবিউলের উপর চড়াও হয়।
ইউপি সদস্য রাহাতুল হাসান আরও বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে তার সামনেই এ ঘটনা ঘটে। পরে তিনি রাজিবকে হামলাকারীদের হাত থেকে উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নেন।
অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে জামাল মল্লিক বলেন, রবিউলের সাথে তাদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে গত ১৯ বছর ধরে। মঙ্গলবার বিকেলে এ নিয়ে তার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। তিনি দাবি করে বলেন, রবিউলের গায়ে হাত দেওয়া হয়নি কিংবা এ ঘটনার সাথে বিদ্যুৎ বিল সংক্রান্ত কোন বিষয় নেই।
ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসানুজ্জামান জানান, এ ব্যাপারে আসামিদের ধরার জন্য অভিযান চালানো হয়েছে। তবে আসামিরা পলাতক থাকায় গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শেরপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী-পুলিশ সংঘর্ষ : পুলিশের গুলি, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ আহত ২০

ফরিদপুরে স্ত্রী ও শিশুসহ সাংবাদিককে মারপিটের অভিযোগ

আপডেট সময় ০৮:১১:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই ২০২৪
ফরিদপুরে বাণিজ্যিক ভাবে অটো চার্জের বিদ্যুৎ বিল ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা করার বিষয়টি  ধরিয়ে দেওয়ায় স্ত্রী ও শিশসহ সাংবাদিককে মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এ বিষয়ে  ফরিদপুর সদরের কৈজুরি ইউনিয়নের কৈজুরি গ্রামের বাসিন্দা নুরুল ইসলামের ছেলে দৈনিক মুক্ত খবর পত্রিকার ফরিদপুর প্রতিনিধি সাংবাদিক রবিউল হাসান (রাজিব) (৩৪) গত রাতে (২ জুলাই)  মো. জামাল মল্লিকসহ আট জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও পাঁচ-ছয়জনকে আসামি করে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, কৈজুরি গ্রামের  মো. জামাল মল্লিক (৫৫) রবিউলের প্রতিবেশি। তিনি (জামাল) বাণিজ্যিক ভাবে অটো চার্জের বিদ্যুৎ বিল ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা করায় তিনি (রবিউল) পেশাগত দায়িত্ব পালন করে বিদ্যুৎ অফিসে এ ব্যাপারে অভিযোগ দেন। এতে বিবাদীরা তার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারার জন্য বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসিতেছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গত মঙ্গলবার  বিকাল অনুমান ৩টার দিকে তার বসত বাড়ীর সামনে পাকা রাস্তার পাশে আখের আলীর মুদির দোকানের সামনে বিবাদীরা লাঠি তার হাত, পা, পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায়  পিটিয়ে ও কিল-ঘুষি এবং লাথি মেরে তাকে মারধোর করে।
তার চিৎকারে তার  স্ত্রী তানিয়া আক্তার (২৪) বাসা থেকে এগিয়ে এলে হামলাকারীরা তানিয়ার  চুলের মুঠি ধরে টানা হেচড়া করে এলোপাথাড়ীভাবে কিলঘুষি মারে। এ সময় তার শিশু কন্যা  রাফিয়া তাসনিম (৬) কান্নাকাটি করিলে হামলাকারীরা তাকে গলা ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়।
এ ঘটনায় সাংবাদিক রবিউল হাসান মঙ্গলবার রাতে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দেন।
রবিউল রাজিব জানায়, বিদ্যুৎ ফাঁকি দেওয়ার বিষয়টি তিনি প্রথম ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহসান তালুকদারকে অবহিত করেন। গত ৩০ জুন বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীকে জানান। গত ১ জুলাই বিদ্যুৎ অফিসের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানী (ওজোপাডিকো) ফরিদপুরের বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ দুই এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। প্রাথমিক তদন্তে কিছু অসংগতি চোখে পড়েছে।
কৈজুরি ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রাহাতুল হাসান  বলেন, মো. জামাল মল্লিক তার গ্যারেজে বাণিজ্যিক ভাবে ইজি বাইক চার্জ দেন। তার বিদ্যুৎ এর বিল নিয়ে অভিযোগ ওঠায় এ বিষয়টি তদন্ত হয়। এ কারনে জামাল ও নারী পুরুষ মিলে তার পরিবারের সদস্যরা সাংবাদিক রবিউলের উপর চড়াও হয়।
ইউপি সদস্য রাহাতুল হাসান আরও বলেন, মঙ্গলবার বিকেলে তার সামনেই এ ঘটনা ঘটে। পরে তিনি রাজিবকে হামলাকারীদের হাত থেকে উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নেন।
অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে জামাল মল্লিক বলেন, রবিউলের সাথে তাদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে গত ১৯ বছর ধরে। মঙ্গলবার বিকেলে এ নিয়ে তার সাথে কথা কাটাকাটি হয়। তিনি দাবি করে বলেন, রবিউলের গায়ে হাত দেওয়া হয়নি কিংবা এ ঘটনার সাথে বিদ্যুৎ বিল সংক্রান্ত কোন বিষয় নেই।
ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসানুজ্জামান জানান, এ ব্যাপারে আসামিদের ধরার জন্য অভিযান চালানো হয়েছে। তবে আসামিরা পলাতক থাকায় গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।