ঢাকা ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরে আইনের নীতিমালা অমান্য করায় জরিমানা

 ফরিদপুর শহরের বিভিন্ন ঔষধের ফার্মেসিতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ঔষধ প্রশাসন আইনের নীতিমালা অমান্য করায় তিন দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
রবিবার ( ৩০ শে জুন) বিকেলে সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মো: বদরুজ্জামান রিশাদ এর নের্তৃত্বে শহরের মুজিব সড়কের বেশ কয়েকটি ফার্মেসিতে ঘন্টাব্যাপী ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়।
এসময় বিভিন্ন ফার্মেসিতে মেয়াদ উত্তীর্র্ণ ওষুধ থাকা, এন্টিবায়টিক ঔষধের রেজিস্টার না মানাসহ বেশ কয়েকটি অপরাধের প্রমান পাই তারা। ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে নিয়ম অমান্য করায় বারাক মডেল ফার্মেসি কে ১০ হাজার, বিশ্বাস ফার্মেসি কে ২ হাজার ও কাজী মেডিকেল কে ২ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়াও সকল দোকানদারকে ওষধ আইনের সকল নিয়মকানুন মেনে চলার নির্দেশ দেন।
সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মো: বদরুজ্জামান রিশাদ জানান, ওষুধের মেয়াদ শেষ হবার একমাস পূর্বেই সেই গুলো ফার্মেসি থেকে আলাদা করে দোকানে বাইরে রাখতে হবে। ঐ মেয়াদ উত্তির্ণ ওষধ গুলো যেকোন মানুষের মৃত্যুর কারণ হতে পারে। তাই কোন অবস্থায় সেগুলো হাতের নাগালে রাখার কোন নিয়ম নেই। ওষুধ প্রশাসন আইনে ফার্মেসি আইনে এক বছরের কারাদন্ড ও সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। আপনারা আগামীতে আইন অমান্য করলে লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশ করা হবে।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শেরপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী-পুলিশ সংঘর্ষ : পুলিশের গুলি, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ আহত ২০

ফরিদপুরে আইনের নীতিমালা অমান্য করায় জরিমানা

আপডেট সময় ০৮:৫২:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ জুন ২০২৪
 ফরিদপুর শহরের বিভিন্ন ঔষধের ফার্মেসিতে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় ঔষধ প্রশাসন আইনের নীতিমালা অমান্য করায় তিন দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
রবিবার ( ৩০ শে জুন) বিকেলে সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মো: বদরুজ্জামান রিশাদ এর নের্তৃত্বে শহরের মুজিব সড়কের বেশ কয়েকটি ফার্মেসিতে ঘন্টাব্যাপী ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালিত হয়।
এসময় বিভিন্ন ফার্মেসিতে মেয়াদ উত্তীর্র্ণ ওষুধ থাকা, এন্টিবায়টিক ঔষধের রেজিস্টার না মানাসহ বেশ কয়েকটি অপরাধের প্রমান পাই তারা। ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে নিয়ম অমান্য করায় বারাক মডেল ফার্মেসি কে ১০ হাজার, বিশ্বাস ফার্মেসি কে ২ হাজার ও কাজী মেডিকেল কে ২ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়াও সকল দোকানদারকে ওষধ আইনের সকল নিয়মকানুন মেনে চলার নির্দেশ দেন।
সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মো: বদরুজ্জামান রিশাদ জানান, ওষুধের মেয়াদ শেষ হবার একমাস পূর্বেই সেই গুলো ফার্মেসি থেকে আলাদা করে দোকানে বাইরে রাখতে হবে। ঐ মেয়াদ উত্তির্ণ ওষধ গুলো যেকোন মানুষের মৃত্যুর কারণ হতে পারে। তাই কোন অবস্থায় সেগুলো হাতের নাগালে রাখার কোন নিয়ম নেই। ওষুধ প্রশাসন আইনে ফার্মেসি আইনে এক বছরের কারাদন্ড ও সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। আপনারা আগামীতে আইন অমান্য করলে লাইসেন্স বাতিলের সুপারিশ করা হবে।