ঢাকা ০২:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোসাঁইর হাটে ১০ লাখ টাকার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে দেশীয় প্রজাতির মাছ রক্ষায় ১০ লাখ টাকার নিষিদ্ধ কারেন্ট ও চায়না দুয়ারি জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। দেশীয় প্রজাতির মাছের উৎপাদন বাড়াতে এ অভিযান পরিচালনা করে মৎস্য বিভাগ।
শুক্রবার (২৮ জুন) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার দাসের জঙ্গল বাজারে অভিযান পরিচালনা করে জালগুলো জব্দ করে মৎস্য বিভাগ।
মৎস্য বিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অবৈধ কারেন্ট জাল ও চায়না দুয়ারি জাল দিয়ে মাছ শিকার করলে দেশীয় মাছসহ মাছের পোনা হুমকিতে পড়ে। শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোসাইরহাট উপজেলা মৎস্য বিভাগ অভিযান পরিচালনা করে দাসের জঙ্গল বাজারে। বাজারের ৩টি গোডাউন থেকে ৩ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল ও ২২০ পিস চায়না দুয়ারি জাল জব্দ করে। জালগুলোর আনুমানিক বাজার মূল্য ১০ লাখ টাকা বলে জানিয়েছে মৎস্য বিভাগ। জব্দকৃত জালগুলো গোসাইরহাটের পট্টি ব্রিজ সংলগ্ন নদীর পাড়ে নিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে মৎস্য বিভাগ। জালগুলো যেসব গোডাউন থেকে জব্দ করা হয়েছে, ওই সকল গোডাউন মালিকের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
গোসাইরহাট উপজেলা মৎস্য অফিসার হাসিবুল হক বলেন, “গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে কারেন্ট জালসহ চায়না দুয়ারি জাল জব্দ করে পুড়িয়ে দিয়েছি। মে থেকে পরবর্তী পাঁচ মাস দেশীয় প্রজাতির মাছের পোনা উৎপাদন হয়। এ সময় চায়না দুয়ারিসহ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছগুলো মেরে ফেলে এক শ্রেণির জেলেরা। দেশীয় মাছের পোনা রক্ষাসহ মৎস্য আইন অনুযায়ী অভিযান অব্যাহত থাকবে।”
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শেরপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী-পুলিশ সংঘর্ষ : পুলিশের গুলি, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ আহত ২০

গোসাঁইর হাটে ১০ লাখ টাকার নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

আপডেট সময় ০৫:৪৬:৩৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুন ২০২৪
শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে দেশীয় প্রজাতির মাছ রক্ষায় ১০ লাখ টাকার নিষিদ্ধ কারেন্ট ও চায়না দুয়ারি জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। দেশীয় প্রজাতির মাছের উৎপাদন বাড়াতে এ অভিযান পরিচালনা করে মৎস্য বিভাগ।
শুক্রবার (২৮ জুন) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলার দাসের জঙ্গল বাজারে অভিযান পরিচালনা করে জালগুলো জব্দ করে মৎস্য বিভাগ।
মৎস্য বিভাগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অবৈধ কারেন্ট জাল ও চায়না দুয়ারি জাল দিয়ে মাছ শিকার করলে দেশীয় মাছসহ মাছের পোনা হুমকিতে পড়ে। শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোসাইরহাট উপজেলা মৎস্য বিভাগ অভিযান পরিচালনা করে দাসের জঙ্গল বাজারে। বাজারের ৩টি গোডাউন থেকে ৩ লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল ও ২২০ পিস চায়না দুয়ারি জাল জব্দ করে। জালগুলোর আনুমানিক বাজার মূল্য ১০ লাখ টাকা বলে জানিয়েছে মৎস্য বিভাগ। জব্দকৃত জালগুলো গোসাইরহাটের পট্টি ব্রিজ সংলগ্ন নদীর পাড়ে নিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে মৎস্য বিভাগ। জালগুলো যেসব গোডাউন থেকে জব্দ করা হয়েছে, ওই সকল গোডাউন মালিকের নাম পরিচয় জানা যায়নি।
গোসাইরহাট উপজেলা মৎস্য অফিসার হাসিবুল হক বলেন, “গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে কারেন্ট জালসহ চায়না দুয়ারি জাল জব্দ করে পুড়িয়ে দিয়েছি। মে থেকে পরবর্তী পাঁচ মাস দেশীয় প্রজাতির মাছের পোনা উৎপাদন হয়। এ সময় চায়না দুয়ারিসহ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছগুলো মেরে ফেলে এক শ্রেণির জেলেরা। দেশীয় মাছের পোনা রক্ষাসহ মৎস্য আইন অনুযায়ী অভিযান অব্যাহত থাকবে।”