ঢাকা ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে জেলা প্রশাসকের বৃক্ষরোপন কর্মসুচীতে জাপানি পর্যটকের অংশ গ্রহন

 বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনকালের -“গৌরবময় ২০২৪০” দিন উপলক্ষে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের আয়োজনে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে জাপানি পর্যটক মিস মাকি সানো অংশ গ্রহন করে কর্মসুচীতে  বৃক্ষ রোপণ ও চারা বিতরণ করা হয়েছে।

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

আয়ু পেয়েছিলেন-বিশ হাজার দুইশত চল্লিশ দিন, এ সংখ্যার সাতগুণ বৃক্ষের ফুলে-ফলে মুন্সীগঞ্জ হবে রঙিন ” স্লোগানকে সামনে রেখে জেলা প্রশাসন ও ৬টি উপজেলা প্রশাসন- এই ৭ টি প্রতিষ্ঠান ৫ই জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস থেকে শুরু করে ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পর্যন্ত প্রতিটি প্রতিষ্ঠান  ৭টি প্রতিষ্ঠান মিলে এ সময়ের মধ্যে ৭*২০২৪০ মোট ১,৪১,৬৮০ টি  চারা রোপণ ও বৃক্ষের চারা বিতরণ করা হয়।

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ আবু জাফর রিপন বিপিএ, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন

জাপানি নাগরিক পর্যটক মিস মাকি সানো।

জাপানি এ অতিথি মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের এমন মহতি উদ্যােগে সাধুবাদ জানান তিনি।

এসময় তিনি বলেন, ১৯৭৩ সালের অক্টোবরে জাপানে বাংলাদেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে শীর্ষ পর্যায়ের প্রথম সফরের সময় বাংলাদেশ জাপান

 দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারের ক্ষেত্রে

অবিসংবাদিত সুযোগ সৃষ্টি হয় এবং বঙ্গবন্ধুর জাপান সফরের সময় হতে বাংলাদেশকে ‘জাপানের-পরম বন্ধু’ হিসেবে অভিহিত করা হয়।

 

তিনি আরো বলেন, তিনি  বাংলাদেশ তথা মুন্সীগঞ্জ এসেছিলেন পুরনো ইতিহাস এবং এই অঞ্চলের ঐতিহ্য দেখা ও জানার লক্ষ্যে। এসে জেলা প্রশাসক মুন্সীগঞ্জের বিশেষ উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি তাকে আকৃষ্ট করেছে। বঙ্গবন্ধু ছিলেন সিংহহৃদয়ের অধিকারী,

জাপান সফরকালে তাঁর সঙ্গে ছিলেন তাঁর ১৬ বছর বয়সী কন্যা শেখ রেহানা ও কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল। জাপান পৌঁছানোর দিন শেখ রাসেলের বয়স ১০ বছর পূর্ণ হয়। সেই সফরে জাপানের জনগণ বাংলাদেশের স্বাধীনতার অপরিহার্যতাকে প্রবলভাবে সমর্থন করেন। বঙ্গবন্ধুর ওই সফরের পর অনেক জাপানিই বাংলাদেশকে চিনতে শুরু করে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শেরপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী-পুলিশ সংঘর্ষ : পুলিশের গুলি, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ আহত ২০

বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে জেলা প্রশাসকের বৃক্ষরোপন কর্মসুচীতে জাপানি পর্যটকের অংশ গ্রহন

আপডেট সময় ০৫:৫০:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪

 বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনকালের -“গৌরবময় ২০২৪০” দিন উপলক্ষে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের আয়োজনে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে জাপানি পর্যটক মিস মাকি সানো অংশ গ্রহন করে কর্মসুচীতে  বৃক্ষ রোপণ ও চারা বিতরণ করা হয়েছে।

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

আয়ু পেয়েছিলেন-বিশ হাজার দুইশত চল্লিশ দিন, এ সংখ্যার সাতগুণ বৃক্ষের ফুলে-ফলে মুন্সীগঞ্জ হবে রঙিন ” স্লোগানকে সামনে রেখে জেলা প্রশাসন ও ৬টি উপজেলা প্রশাসন- এই ৭ টি প্রতিষ্ঠান ৫ই জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস থেকে শুরু করে ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পর্যন্ত প্রতিটি প্রতিষ্ঠান  ৭টি প্রতিষ্ঠান মিলে এ সময়ের মধ্যে ৭*২০২৪০ মোট ১,৪১,৬৮০ টি  চারা রোপণ ও বৃক্ষের চারা বিতরণ করা হয়।

 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ আবু জাফর রিপন বিপিএ, সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন

জাপানি নাগরিক পর্যটক মিস মাকি সানো।

জাপানি এ অতিথি মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের এমন মহতি উদ্যােগে সাধুবাদ জানান তিনি।

এসময় তিনি বলেন, ১৯৭৩ সালের অক্টোবরে জাপানে বাংলাদেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে শীর্ষ পর্যায়ের প্রথম সফরের সময় বাংলাদেশ জাপান

 দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদারের ক্ষেত্রে

অবিসংবাদিত সুযোগ সৃষ্টি হয় এবং বঙ্গবন্ধুর জাপান সফরের সময় হতে বাংলাদেশকে ‘জাপানের-পরম বন্ধু’ হিসেবে অভিহিত করা হয়।

 

তিনি আরো বলেন, তিনি  বাংলাদেশ তথা মুন্সীগঞ্জ এসেছিলেন পুরনো ইতিহাস এবং এই অঞ্চলের ঐতিহ্য দেখা ও জানার লক্ষ্যে। এসে জেলা প্রশাসক মুন্সীগঞ্জের বিশেষ উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি তাকে আকৃষ্ট করেছে। বঙ্গবন্ধু ছিলেন সিংহহৃদয়ের অধিকারী,

জাপান সফরকালে তাঁর সঙ্গে ছিলেন তাঁর ১৬ বছর বয়সী কন্যা শেখ রেহানা ও কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল। জাপান পৌঁছানোর দিন শেখ রাসেলের বয়স ১০ বছর পূর্ণ হয়। সেই সফরে জাপানের জনগণ বাংলাদেশের স্বাধীনতার অপরিহার্যতাকে প্রবলভাবে সমর্থন করেন। বঙ্গবন্ধুর ওই সফরের পর অনেক জাপানিই বাংলাদেশকে চিনতে শুরু করে।