ঢাকা ০২:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্বম্ভরপুরে বন্যার্তদের জন্য সরকারের সুদৃষ্টি আছে – ড. মোহাম্মদ সাদিক এমপি

বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় অত্র এলাকার জন্য অত্যন্ত আন্তরিক এবং সব সময় সুদৃষ্টি রাখেন। বর্তমান সরকারের খাদ্য ও ত্রাণের কোনো অভাব নেই। খাদ্যের অভাবে যাতে মানুষ কষ্ট না পায়, এজন্য সুষ্ঠুভাবে বণ্টন করতে হবে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, আঃলীগ রাজনৈতিক নেতাকর্মীসহ সমাজসেবক সকল মহলের সমন্বয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, প্রতিটি দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য স্বেচ্ছাসেবক গঠন করতে হবে। পিছিয়ে থাকা বিশ্বম্ভরপুর উপজেলাকে সার্বিক উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সুনামগঞ্জ জেলায় উন্নয়ন হয়েছে, মেডিক্যাল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ অনেক উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু সব এলাকায় উন্নয়নের ফুল ফুটেনি। আমি সুনামগঞ্জ –৪ আসনের উন্নয়ন করতে চাই। আমি এ অঞ্চলের উন্নয়নের পরিকল্পনা করছি,স্বপ্ন দেখছি।
কথাগুলো শুক্রবার (২১ জুন) রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় ত্রাণ বিতরণের পূর্বে মতবিনিময় সভায় জাতীয় সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেছেন।
  শুক্রবার রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলার প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধি, আঃলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পেশার লোকজনের উপস্তিতিতে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মফিজুর রহমানের তত্ত্বাবধানে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ সাদিক।
ড. মোহাম্মদ সাদিক আরো বলেন, বর্তমান জনবান্ধব সরকার দেশকে উন্নয়নে অনেক এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন গোপালগঞ্জে উন্নয়ন হলে, সুনামগঞ্জেও উন্নয়ন হবে। উন্নয়ন হচ্ছেও। প্রধানমন্ত্রী হাওর এলাকার মানুষকে ভালোবাসেন ও হাওরবাসীর উন্নয়নে আন্তরিক।
হাওরে কোথায় বাধ, ব্রীজ, কোথায় নদী, খাল খনন তা সব জানেন। কাজেই এ অঞ্চলের সার্বিক উন্নয়ন এ সরকারের আমলে হবে।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ড. সাদিক বলেন নদী ভাঙন রোধ, নদী খনন ও যোগাযোগের উন্নয়নসহ দুর্যোগ মোকাবেলায় ও সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাবো।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মফিজুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শিল্পী রাণী মোদক, থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল বণিক, তাহিরপুর উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল, শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কালাম, উপজেলা আওয়ামিলীগ সভাপতি বেনজির আহমদ মানিক, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিদ্দিকী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহ দিলোয়ার হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জান্নাত মরিয়ম, বাদাঘাট দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ছবাব মিয়া, ধনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মিলন মিয়া, সলুকাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকী তপন, পলাশ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সুহেল আহমদ, ফতেপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক আহমদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সভাপতি স্বপন কুমার বর্মন এবং আওয়ামীলীগ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার প্রতিনিধি গণ।মতবিনিময় সভার পর মোহাম্মদ সাদিক উপজেলা আওয়ামিলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে একান্ত দলীয় সভায় মিলিত হন। পরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্যসামগ্রী প্যাকেট ত্রাণ বিতরণ করেন।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শেরপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারী-পুলিশ সংঘর্ষ : পুলিশের গুলি, পুলিশ ও সাংবাদিকসহ আহত ২০

বিশ্বম্ভরপুরে বন্যার্তদের জন্য সরকারের সুদৃষ্টি আছে – ড. মোহাম্মদ সাদিক এমপি

আপডেট সময় ০৪:৪০:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪
বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় অত্র এলাকার জন্য অত্যন্ত আন্তরিক এবং সব সময় সুদৃষ্টি রাখেন। বর্তমান সরকারের খাদ্য ও ত্রাণের কোনো অভাব নেই। খাদ্যের অভাবে যাতে মানুষ কষ্ট না পায়, এজন্য সুষ্ঠুভাবে বণ্টন করতে হবে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, আঃলীগ রাজনৈতিক নেতাকর্মীসহ সমাজসেবক সকল মহলের সমন্বয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, প্রতিটি দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য স্বেচ্ছাসেবক গঠন করতে হবে। পিছিয়ে থাকা বিশ্বম্ভরপুর উপজেলাকে সার্বিক উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। সুনামগঞ্জ জেলায় উন্নয়ন হয়েছে, মেডিক্যাল কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ অনেক উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু সব এলাকায় উন্নয়নের ফুল ফুটেনি। আমি সুনামগঞ্জ –৪ আসনের উন্নয়ন করতে চাই। আমি এ অঞ্চলের উন্নয়নের পরিকল্পনা করছি,স্বপ্ন দেখছি।
কথাগুলো শুক্রবার (২১ জুন) রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় ত্রাণ বিতরণের পূর্বে মতবিনিময় সভায় জাতীয় সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ সাদিক বলেছেন।
  শুক্রবার রাতে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলার প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধি, আঃলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পেশার লোকজনের উপস্তিতিতে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মফিজুর রহমানের তত্ত্বাবধানে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদ সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. মোহাম্মদ সাদিক।
ড. মোহাম্মদ সাদিক আরো বলেন, বর্তমান জনবান্ধব সরকার দেশকে উন্নয়নে অনেক এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন গোপালগঞ্জে উন্নয়ন হলে, সুনামগঞ্জেও উন্নয়ন হবে। উন্নয়ন হচ্ছেও। প্রধানমন্ত্রী হাওর এলাকার মানুষকে ভালোবাসেন ও হাওরবাসীর উন্নয়নে আন্তরিক।
হাওরে কোথায় বাধ, ব্রীজ, কোথায় নদী, খাল খনন তা সব জানেন। কাজেই এ অঞ্চলের সার্বিক উন্নয়ন এ সরকারের আমলে হবে।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ড. সাদিক বলেন নদী ভাঙন রোধ, নদী খনন ও যোগাযোগের উন্নয়নসহ দুর্যোগ মোকাবেলায় ও সার্বিক উন্নয়নে কাজ করে যাবো।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মফিজুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শিল্পী রাণী মোদক, থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যামল বণিক, তাহিরপুর উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান করুণাসিন্ধু চৌধুরী বাবুল, শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আবুল কালাম, উপজেলা আওয়ামিলীগ সভাপতি বেনজির আহমদ মানিক, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিদ্দিকী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহ দিলোয়ার হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জান্নাত মরিয়ম, বাদাঘাট দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ছবাব মিয়া, ধনপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মিলন মিয়া, সলুকাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান নুরে আলম সিদ্দিকী তপন, পলাশ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সুহেল আহমদ, ফতেপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক আহমদ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম, প্রেসক্লাব সভাপতি স্বপন কুমার বর্মন এবং আওয়ামীলীগ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার প্রতিনিধি গণ।মতবিনিময় সভার পর মোহাম্মদ সাদিক উপজেলা আওয়ামিলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে একান্ত দলীয় সভায় মিলিত হন। পরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্যসামগ্রী প্যাকেট ত্রাণ বিতরণ করেন।