ঢাকা ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরে ২৮ কেজি গাজাসহ ৩ জনকে আটক

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় কাভার্ডভ্যানের মধ্যে কৌশলে মাদক চালনের সময় র‌্যাবের অভিযানে ২৮ কেজি গাজা সহ তিন জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া গাজার বাজার মূল্য আনুমানিক সাড়ে ৮ লাখ টাকা। এসময় কাভার জব্দ করা হয়।
সোমবার ( ১০ই জুন) সকালে  ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের বগাইলে বঙ্গবন্ধু টোল প্লাজা এলাকায় থেকে মাদকসহ তাদের আটক করে র‌্যাব।
দুপুরে র‌্যাব-১০ এর ফরিদপুর কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার কে এম শাইখ আকতার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, চট্রগ্রাম থেকে একটি মালবাহী কাভাডভ্যান ফরিদপুরের দিকে আসার পথে সোমবার সকাল ৮টার দিকে ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের টোল প্লাজা এলাকায় গাড়িটি থামিয়ে তল্লাসি করে র‌্যাব সদস্যরা। এসময় প্লাস্টিকের কাঁচামালের আড়ালে থাকা ২৮ কেজি গাজা উদ্ধার করা হয়। যার বাজার মূল্য প্রায় ৮ লাখ টাকা।
র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গাজা পরিবহনের কথা স্বীকার করায় এসময় কাভার্ডভ্যানে থাকা ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলো – বাঘেরহাট জেলার কোতয়ালী থানা এলাকার রহিমাবাদ গ্রামের শেখ রাজ্জাক আলীর ছেলে শেখ হৃদয় হাসান(২৪), খলিল হাওলাদারে ছেলে হেলাল উদ্দিন(২১) ও মোল্লারহাট থানার উদয়পুর গ্রামের ওবায়দুল শেখের ছেলে ইব্রাহিম শেখ(৩২)।
এ সময় তাদের নিকট থেকে মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত ১টি কাভার্ডভ্যান জব্দ এবং ৩টি মোবাইল ফোন ও নয় হাজার চারশত পঞ্চাশ টাকা উদ্ধার করা হয়।
এছাড়াও গতকাল ‍রবিবার ( ৯ ই জুন)  একই এলাকায় অভিযান চলিয়ে ঢাকা থেকে মাদারীপুর গামী একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার দুই ৬৪ পিচ ইয়াবা সহ এক ব্যাক্তিকে আটক করা হয়। আটক আব্দুর রহিম(৬৫) চট্রগ্রাম জেলার পটিয়া থানার লাখেড়া গ্রামের মরহুম আব্দুল মাবুদ এর ছেলে।
তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন সীমান্তবর্তী এলাকা হতে গাঁজা ও ইয়াবাসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে ফরিদপুর, মাদারীপুরসহ আশেপাশের বিভিন্ন জেলায় মাদক সরবরাহ করে আসছিল। এছাড়া গ্রেফতারকৃত মোঃ আব্দুর রহিমের নামে রংপুরের কোতয়ালী ও চট্টগ্রামের পটিয়া থানায় মাদক মামলাসহ ২টি মামলা রয়েছে বলে জানা যায়।
আটক গ্রেফতারকৃত ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় পৃথক মাদক মামলা রুজু করে কোর্টে পাঠানো হয়।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুরে রাজস্ব সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ফরিদপুরে ২৮ কেজি গাজাসহ ৩ জনকে আটক

আপডেট সময় ০৮:২৮:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪
ফরিদপুরের ভাঙ্গায় কাভার্ডভ্যানের মধ্যে কৌশলে মাদক চালনের সময় র‌্যাবের অভিযানে ২৮ কেজি গাজা সহ তিন জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া গাজার বাজার মূল্য আনুমানিক সাড়ে ৮ লাখ টাকা। এসময় কাভার জব্দ করা হয়।
সোমবার ( ১০ই জুন) সকালে  ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের বগাইলে বঙ্গবন্ধু টোল প্লাজা এলাকায় থেকে মাদকসহ তাদের আটক করে র‌্যাব।
দুপুরে র‌্যাব-১০ এর ফরিদপুর কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার কে এম শাইখ আকতার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, চট্রগ্রাম থেকে একটি মালবাহী কাভাডভ্যান ফরিদপুরের দিকে আসার পথে সোমবার সকাল ৮টার দিকে ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের টোল প্লাজা এলাকায় গাড়িটি থামিয়ে তল্লাসি করে র‌্যাব সদস্যরা। এসময় প্লাস্টিকের কাঁচামালের আড়ালে থাকা ২৮ কেজি গাজা উদ্ধার করা হয়। যার বাজার মূল্য প্রায় ৮ লাখ টাকা।
র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গাজা পরিবহনের কথা স্বীকার করায় এসময় কাভার্ডভ্যানে থাকা ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলো – বাঘেরহাট জেলার কোতয়ালী থানা এলাকার রহিমাবাদ গ্রামের শেখ রাজ্জাক আলীর ছেলে শেখ হৃদয় হাসান(২৪), খলিল হাওলাদারে ছেলে হেলাল উদ্দিন(২১) ও মোল্লারহাট থানার উদয়পুর গ্রামের ওবায়দুল শেখের ছেলে ইব্রাহিম শেখ(৩২)।
এ সময় তাদের নিকট থেকে মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত ১টি কাভার্ডভ্যান জব্দ এবং ৩টি মোবাইল ফোন ও নয় হাজার চারশত পঞ্চাশ টাকা উদ্ধার করা হয়।
এছাড়াও গতকাল ‍রবিবার ( ৯ ই জুন)  একই এলাকায় অভিযান চলিয়ে ঢাকা থেকে মাদারীপুর গামী একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার দুই ৬৪ পিচ ইয়াবা সহ এক ব্যাক্তিকে আটক করা হয়। আটক আব্দুর রহিম(৬৫) চট্রগ্রাম জেলার পটিয়া থানার লাখেড়া গ্রামের মরহুম আব্দুল মাবুদ এর ছেলে।
তারা বেশ কিছুদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন সীমান্তবর্তী এলাকা হতে গাঁজা ও ইয়াবাসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সংগ্রহ করে ফরিদপুর, মাদারীপুরসহ আশেপাশের বিভিন্ন জেলায় মাদক সরবরাহ করে আসছিল। এছাড়া গ্রেফতারকৃত মোঃ আব্দুর রহিমের নামে রংপুরের কোতয়ালী ও চট্টগ্রামের পটিয়া থানায় মাদক মামলাসহ ২টি মামলা রয়েছে বলে জানা যায়।
আটক গ্রেফতারকৃত ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে ফরিদপুর কোতয়ালী থানায় পৃথক মাদক মামলা রুজু করে কোর্টে পাঠানো হয়।