ঢাকা ১২:২৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুর জেলার দুধের চাহিদা ছাড়িয়েছে উৎপাদন, চরের জমি ব্যবহারের দাবী

ফরিদপুরে জেলায় চলতি বছরে দুইলাখ ২৫ হাজার মেট্রিকটন দুধ উৎপাদন করা হয়েছে, যা চাহিদার চেয়ে ৫১ হাজার মেট্রিক টন বেশী। পদ্মা ও আড়িয়াল খা বেস্টিত বিশাল চরকে কাজে লাগিয়ে উৎপাদন আরো বাড়িয়ে দেশের চাহিদার বড় অংশ মেটানো সম্ভব বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

রোববার (২ ই জুন) দুপুরে  ফরিদপুর শহরের জসিম উদ্দীন হলে বিশ্ব দুগ্ধ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন বক্তারা।

ফরিদপুর জেলা প্রশাসক এবং জেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তরের সহযোগীতায় প্রাণী সম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্পের আয়োজনে এ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য ঝর্ণ হাসান।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহ্সান তালুকদার এর সভাপতিত্বে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের পরিচালক (সম্প্রসারণ) ডা. মো. শাহীনুর আলম ও বিভাগীয় প্রাণী সম্পদ দপ্তরের পরিচালক জিনাত সুলতানা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা প্রাণী দপ্তরের জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. সঞ্জীব কুমার বিশ্বাস, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা জানান, ফরিদপুরের চরাঞ্চলে বিপুল পরিমান জমি রয়েছে, যার অধিকাংশই অনাবাদি থাকে বছর জুড়ে, এসব জমিতে পশু খাদ্যের আবাদ বৃদ্ধি করে এবং বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে পশু পালন করে দেশের মোট চাহিদার বড় অংশ পুরণ করা সম্ভব। এসময় কেউ এ ধরনের খামার করতে আগ্রহী হলে চরের খাস জমি বন্দোবস্তো দেয়ার আশ্বাসও দেন জেলা প্রশাসক। বক্তারা তাদের বক্তব্যে দুধ শিল্পের প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দেয়ার আহ জানান।

প্রসঙ্গত , ফরিদপুরের মানুষের বছরের দুধের চাহিদা রয়েছে এক লক্ষ ৭৪ হাজার মেট্রিক টন।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুরে রাজস্ব সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ফরিদপুর জেলার দুধের চাহিদা ছাড়িয়েছে উৎপাদন, চরের জমি ব্যবহারের দাবী

আপডেট সময় ০২:৩৯:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ জুন ২০২৪

ফরিদপুরে জেলায় চলতি বছরে দুইলাখ ২৫ হাজার মেট্রিকটন দুধ উৎপাদন করা হয়েছে, যা চাহিদার চেয়ে ৫১ হাজার মেট্রিক টন বেশী। পদ্মা ও আড়িয়াল খা বেস্টিত বিশাল চরকে কাজে লাগিয়ে উৎপাদন আরো বাড়িয়ে দেশের চাহিদার বড় অংশ মেটানো সম্ভব বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

রোববার (২ ই জুন) দুপুরে  ফরিদপুর শহরের জসিম উদ্দীন হলে বিশ্ব দুগ্ধ দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন বক্তারা।

ফরিদপুর জেলা প্রশাসক এবং জেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তরের সহযোগীতায় প্রাণী সম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্পের আয়োজনে এ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য ঝর্ণ হাসান।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক মো. কামরুল আহ্সান তালুকদার এর সভাপতিত্বে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের পরিচালক (সম্প্রসারণ) ডা. মো. শাহীনুর আলম ও বিভাগীয় প্রাণী সম্পদ দপ্তরের পরিচালক জিনাত সুলতানা বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা প্রাণী দপ্তরের জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. সঞ্জীব কুমার বিশ্বাস, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

বক্তারা জানান, ফরিদপুরের চরাঞ্চলে বিপুল পরিমান জমি রয়েছে, যার অধিকাংশই অনাবাদি থাকে বছর জুড়ে, এসব জমিতে পশু খাদ্যের আবাদ বৃদ্ধি করে এবং বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে পশু পালন করে দেশের মোট চাহিদার বড় অংশ পুরণ করা সম্ভব। এসময় কেউ এ ধরনের খামার করতে আগ্রহী হলে চরের খাস জমি বন্দোবস্তো দেয়ার আশ্বাসও দেন জেলা প্রশাসক। বক্তারা তাদের বক্তব্যে দুধ শিল্পের প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দেয়ার আহ জানান।

প্রসঙ্গত , ফরিদপুরের মানুষের বছরের দুধের চাহিদা রয়েছে এক লক্ষ ৭৪ হাজার মেট্রিক টন।