ঢাকা ০৮:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৃষ্টিনন্দন নতুন সড়কে বদলে যাবে ফরিদগঞ্জ-চান্দ্রা-সেকদি-টুবগি এলাকার 

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার চান্দ্রা-সেকদি-টুবগী নতুন সড়কের মাধ্যমে বদলে যাবে এলাকার চিত্র। চান্দ্রা বাজার ভূমি অফিস হতে চাঁদপুর-ফরিদগঞ্জ-রায়পুর সড়কের টুবগী রাস্তার মাথা পর্যন্ত নির্মিত নতুন এ দৃষ্টিনন্দন সড়কের কাজ শুরু হয়েছে। এটি প্রথম ধাপে চান্দ্রা ভূমি অফিস হতে সেকদি ব্রিজ পর্যন্ত ৮শত ১৫ মিটারের কাজ করা হবে। যার নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ কোটি ২০ লাখ ৬৮ হাজার ৭৯৫ টাকা। দৃষ্টিনন্দন এ সড়কে থাকবে সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য বিভিন্ন রঙের লাইটিং ব্যবস্থা। রাস্তার দুই পাশে থাকবে ওয়াকওয়ে। লাগানো হবে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। সড়কটি দৃশ্যমান হলে ফরিদগঞ্জ উপজেলার চান্দ্রা সেকদি এলাকার চিত্র একেবারেই বদলে যাবে।
চান্দ্রা এলাকায় রয়েছে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। এছাড়া রয়েছে জেলার সর্ববৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চান্দ্রা ইমাম আলী উচ্চ বিদ্যালয়, রয়েছে কলেজ, ফাজিল মাদ্রাসা,, কয়েকটি কিন্ডার গার্ডেন, জেলার সর্ববৃহৎ চান্দ্রা বাজার সহ আরও কত কি। যার কারনে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মানুষ এ এলাকা দিয়ে যাতায়াত করেন। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি  মাসে কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তবে কাজ শেষ হবে কি না সে বিষয়ে সংশয় রয়েছে। কারণ; কাজ শুরু করার আগে এখানে নানা রকম জটিলতা ছিল। বিশেষ করে চান্দ্রা-সেকদি চর সমিতির সহনশীলতা এবং অতিবৃষ্টি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বলছে, চান্দ্রা-সেকদির চর ইজারাদার সমিতির সহনশীলতা পেলে এবং অতিবৃষ্টি না হলে কাজ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই শেষ করা সম্ভব হবে।
দৃষ্টিনন্দন এই রাস্তার কাজ চলছে এ বিষয়ে চান্দ্রা ইমাম আলী উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের কয়েকজন ছাত্র ছাত্রী, অভিভাবক ও পথচারীদের সাথে কথা হলে তারা বলেন, ইতি পূর্বেও এ রাস্তা তৈরি করার জন্য কয়েকবার বড় ধরনের বাজেট এসেছিল। সে সময় এই রাস্তায় নামকাওয়াস্তে সামান্য কিছু কাজ করে রাস্তা  তৈরির বাজেট দিয়ে অনেকের ভাগ্য বদল হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস এই বছর সেরকম হবে না। কারন; এবছর দেখা যাচ্ছে, এখনই রাস্তার কাজ দৃশ্য মান। রাস্তার এ কাজে আমরা সবাই খুশি, কারন; দীর্ঘদিন এই রাস্তার কারণে আমরা বিপদগ্রস্ত অবস্থায় ছিলাম।
রাস্তাটি তৈরি করে দেওয়ার জন্য কাজ পেয়েছে এমজিকেআইজেবি নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে জানার জন্য প্রতিষ্ঠানের মূল মালিককে না পেলেও  কর্মচারী মিজানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ২০২৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে কাজ শেষ হওয়ার কথা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সময়ের আগেই কাজ শেষ করা সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।
বিষয়টি নিয়ে ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আবরার আহমেদের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, চান্দ্রা-টুবগি সড়কটি হবে একটি দৃষ্টিনন্দন সড়ক। সড়কটির কাজ শেষ হলে এর সৌন্দর্য সবার মন কেড়ে নিবে। তিনি আশা করছেন আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবং চান্দ্রা-সেকদি চর ইজারাদার সমিতির নেতৃবৃন্দের সহনশীলতা পেলে আগামী ২৫ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যেই রাস্তাটির কাজ শেষ করা সম্ভব। এবং রাস্তাটির কাজ শেষ হলে এই অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের চলাচল আরামদায়ক ও শোভনীয় হবে বলে তিনি জানান।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুরে রাজস্ব সম্মেলন অনুষ্ঠিত

দৃষ্টিনন্দন নতুন সড়কে বদলে যাবে ফরিদগঞ্জ-চান্দ্রা-সেকদি-টুবগি এলাকার 

আপডেট সময় ০৮:০৩:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার চান্দ্রা-সেকদি-টুবগী নতুন সড়কের মাধ্যমে বদলে যাবে এলাকার চিত্র। চান্দ্রা বাজার ভূমি অফিস হতে চাঁদপুর-ফরিদগঞ্জ-রায়পুর সড়কের টুবগী রাস্তার মাথা পর্যন্ত নির্মিত নতুন এ দৃষ্টিনন্দন সড়কের কাজ শুরু হয়েছে। এটি প্রথম ধাপে চান্দ্রা ভূমি অফিস হতে সেকদি ব্রিজ পর্যন্ত ৮শত ১৫ মিটারের কাজ করা হবে। যার নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ কোটি ২০ লাখ ৬৮ হাজার ৭৯৫ টাকা। দৃষ্টিনন্দন এ সড়কে থাকবে সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য বিভিন্ন রঙের লাইটিং ব্যবস্থা। রাস্তার দুই পাশে থাকবে ওয়াকওয়ে। লাগানো হবে বিভিন্ন প্রজাতির গাছ। সড়কটি দৃশ্যমান হলে ফরিদগঞ্জ উপজেলার চান্দ্রা সেকদি এলাকার চিত্র একেবারেই বদলে যাবে।
চান্দ্রা এলাকায় রয়েছে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। এছাড়া রয়েছে জেলার সর্ববৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চান্দ্রা ইমাম আলী উচ্চ বিদ্যালয়, রয়েছে কলেজ, ফাজিল মাদ্রাসা,, কয়েকটি কিন্ডার গার্ডেন, জেলার সর্ববৃহৎ চান্দ্রা বাজার সহ আরও কত কি। যার কারনে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার মানুষ এ এলাকা দিয়ে যাতায়াত করেন। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি  মাসে কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তবে কাজ শেষ হবে কি না সে বিষয়ে সংশয় রয়েছে। কারণ; কাজ শুরু করার আগে এখানে নানা রকম জটিলতা ছিল। বিশেষ করে চান্দ্রা-সেকদি চর সমিতির সহনশীলতা এবং অতিবৃষ্টি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বলছে, চান্দ্রা-সেকদির চর ইজারাদার সমিতির সহনশীলতা পেলে এবং অতিবৃষ্টি না হলে কাজ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই শেষ করা সম্ভব হবে।
দৃষ্টিনন্দন এই রাস্তার কাজ চলছে এ বিষয়ে চান্দ্রা ইমাম আলী উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের কয়েকজন ছাত্র ছাত্রী, অভিভাবক ও পথচারীদের সাথে কথা হলে তারা বলেন, ইতি পূর্বেও এ রাস্তা তৈরি করার জন্য কয়েকবার বড় ধরনের বাজেট এসেছিল। সে সময় এই রাস্তায় নামকাওয়াস্তে সামান্য কিছু কাজ করে রাস্তা  তৈরির বাজেট দিয়ে অনেকের ভাগ্য বদল হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস এই বছর সেরকম হবে না। কারন; এবছর দেখা যাচ্ছে, এখনই রাস্তার কাজ দৃশ্য মান। রাস্তার এ কাজে আমরা সবাই খুশি, কারন; দীর্ঘদিন এই রাস্তার কারণে আমরা বিপদগ্রস্ত অবস্থায় ছিলাম।
রাস্তাটি তৈরি করে দেওয়ার জন্য কাজ পেয়েছে এমজিকেআইজেবি নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে জানার জন্য প্রতিষ্ঠানের মূল মালিককে না পেলেও  কর্মচারী মিজানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, ২০২৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে কাজ শেষ হওয়ার কথা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে সময়ের আগেই কাজ শেষ করা সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।
বিষয়টি নিয়ে ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আবরার আহমেদের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, চান্দ্রা-টুবগি সড়কটি হবে একটি দৃষ্টিনন্দন সড়ক। সড়কটির কাজ শেষ হলে এর সৌন্দর্য সবার মন কেড়ে নিবে। তিনি আশা করছেন আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবং চান্দ্রা-সেকদি চর ইজারাদার সমিতির নেতৃবৃন্দের সহনশীলতা পেলে আগামী ২৫ সালের ফেব্রুয়ারির মধ্যেই রাস্তাটির কাজ শেষ করা সম্ভব। এবং রাস্তাটির কাজ শেষ হলে এই অঞ্চলের হাজার হাজার মানুষের চলাচল আরামদায়ক ও শোভনীয় হবে বলে তিনি জানান।