ঢাকা ০৯:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেসবুকের কল্যাণে এক যুগ পর বাড়ি ফিরলো বৃদ্ধ মা

মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় মাঝেমধ্যে কাউকে কিছু না বলে লাপাত্তা হয়ে যেতেন জগুনা বিবি। পরিবারের সদস্যরা তাকে পুনরায় খুঁজে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে আসলেও শেষবারের ঘটনাটি একটু ভিন্ন। এর আগে তাকে নিজ জেলার মধ্যে খুঁজে পাওয়া গেলেও, শেষ বার যখন নিখোঁজ হন তখন দেশ ছেড়ে ভুলে বর্ডার পেরিয়ে চলে চান ভারতে। পরিবারের সবাই তার খোঁজ না পেয়ে ভেবেছিলেন হয়তো তাকে আর পাওয়া যাবে না। আর এভাবেই কেটে যায় দীর্ঘ এক যুগের বেশি। তবে অবশেষে ফেসবুকে কল্যাণে এবার বাড়ি ফিরেছেন তিনি। তাকে নতুন করে ফিরে পেয়ে খুশি স্বজন ও এলাকাবাসী।
পরিবার জানায়, জগুনা বিবির বয়স এখন সত্তর। তার বাড়ি শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার জাজিরা ইউনিয়নের ডেঙ্গর বেপারী কান্দি এলাকায়। তার স্বামীর নাম লাল মিয়া বেপারী। ২০১১ সালে তিনি নিখোঁজ হন। গত রমজান মাসে জাজিরা উপজেলার মাসুদ রানা নামের এক ফেসবুক আইডিতে কমেন্ট করেন আজিজুল শেখ নামের এক ব্যক্তি। যার বাড়ি ভারতের কলকাতায়।
কমেন্টে তিনি জানান- আট বছর ধরে বাংলাদেশের জাজিরার জগুনা নামের একজন বৃদ্ধা তার কাছে রয়েছেন। এরপর মাসুদ রানা জাজিরার কয়েকটি ফেসবুক গ্রুপ জগুনা বিবির ছবি দিয়ে পরিবারের সন্ধান চেয়ে পোস্ট করেন। আর সেখান থেকেই খোঁজ মিলে জগুনা বিবির পরিবারের। এরপর পরিবারের সদস্যরা কলকাতায় আজিজুল শেখের সঙ্গে যোগাযোগ করে ৩০ এপ্রিল বেনাপোল বন্দর দিয়ে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন জগুনা বিবিকে। দীর্ঘদিন পর তাকে কাছে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে উঠেন পরিবারের সদস্যরা।
জগুনা বিবির ছেলে জয়নাল বেপারী বলেন, মা হারিয়ে যাওয়ার পর অনেক জায়গায় খোঁজ করেছি, কিন্তু পাইনি। ভেবেছিলাম আর খুঁজে পাবো না। পরে মাসুদ ভাইয়ের মাধ্যমে মায়ের খোঁজ পাই। আমরা কলকাতার সেই ভাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে মায়ের পরিচয়পত্রসহ সব ধরনের ডকুমেন্টস পাঠাই। ওনি মাকে দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। আমি মাকে পেয়ে অনেক খুশি।
ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুরের আদিবাসীদের শিক্ষা কর্মসংস্থান ও বাসস্থানের নিশ্চয়তা দাবী

ফেসবুকের কল্যাণে এক যুগ পর বাড়ি ফিরলো বৃদ্ধ মা

আপডেট সময় ০৪:৪৯:০০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪
মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় মাঝেমধ্যে কাউকে কিছু না বলে লাপাত্তা হয়ে যেতেন জগুনা বিবি। পরিবারের সদস্যরা তাকে পুনরায় খুঁজে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে আসলেও শেষবারের ঘটনাটি একটু ভিন্ন। এর আগে তাকে নিজ জেলার মধ্যে খুঁজে পাওয়া গেলেও, শেষ বার যখন নিখোঁজ হন তখন দেশ ছেড়ে ভুলে বর্ডার পেরিয়ে চলে চান ভারতে। পরিবারের সবাই তার খোঁজ না পেয়ে ভেবেছিলেন হয়তো তাকে আর পাওয়া যাবে না। আর এভাবেই কেটে যায় দীর্ঘ এক যুগের বেশি। তবে অবশেষে ফেসবুকে কল্যাণে এবার বাড়ি ফিরেছেন তিনি। তাকে নতুন করে ফিরে পেয়ে খুশি স্বজন ও এলাকাবাসী।
পরিবার জানায়, জগুনা বিবির বয়স এখন সত্তর। তার বাড়ি শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার জাজিরা ইউনিয়নের ডেঙ্গর বেপারী কান্দি এলাকায়। তার স্বামীর নাম লাল মিয়া বেপারী। ২০১১ সালে তিনি নিখোঁজ হন। গত রমজান মাসে জাজিরা উপজেলার মাসুদ রানা নামের এক ফেসবুক আইডিতে কমেন্ট করেন আজিজুল শেখ নামের এক ব্যক্তি। যার বাড়ি ভারতের কলকাতায়।
কমেন্টে তিনি জানান- আট বছর ধরে বাংলাদেশের জাজিরার জগুনা নামের একজন বৃদ্ধা তার কাছে রয়েছেন। এরপর মাসুদ রানা জাজিরার কয়েকটি ফেসবুক গ্রুপ জগুনা বিবির ছবি দিয়ে পরিবারের সন্ধান চেয়ে পোস্ট করেন। আর সেখান থেকেই খোঁজ মিলে জগুনা বিবির পরিবারের। এরপর পরিবারের সদস্যরা কলকাতায় আজিজুল শেখের সঙ্গে যোগাযোগ করে ৩০ এপ্রিল বেনাপোল বন্দর দিয়ে বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন জগুনা বিবিকে। দীর্ঘদিন পর তাকে কাছে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে উঠেন পরিবারের সদস্যরা।
জগুনা বিবির ছেলে জয়নাল বেপারী বলেন, মা হারিয়ে যাওয়ার পর অনেক জায়গায় খোঁজ করেছি, কিন্তু পাইনি। ভেবেছিলাম আর খুঁজে পাবো না। পরে মাসুদ ভাইয়ের মাধ্যমে মায়ের খোঁজ পাই। আমরা কলকাতার সেই ভাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে মায়ের পরিচয়পত্রসহ সব ধরনের ডকুমেন্টস পাঠাই। ওনি মাকে দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। আমি মাকে পেয়ে অনেক খুশি।