প্রকাশিত হলো চট্টগ্রামের ছেলে পিজিতের ‘ভুল’

এম. মতিন, চট্টগ্রাম।
মানুষ মাত্রই ভুল, তবে ভুল থেকে যদি ভালো কিছু হয়, তবে ভুল’ই ভালো। ঠিক এমনি একটি ভুলে’র কথা দিয়ে দুঃখ ও শোকের স্মৃতি বহন করে বাঙালি বিজয়ের মাস ডিসেম্বর উপলক্ষে গতকাল প্রকাশ হলো ‘ভুল’ শিরোনামের মিউজিক্যাল ফ্লিম।
গানের কথা লিখেছেন ফকির হযরত শাহ, সুর করেছেন পিজিত নিজেই। সংগীত পরিচালনা করেছেন অনিম খান, গানে বংশী বাজিঁয়েছেন দেশ সেরা বাশিবাদক কামরুল আহম্মেদ। গানটি ২ ডিসেম্বর প্রকাশিত হয়েছে পপি মাল্টিমিডিয়া ইউটিউব চ্যানেলে।
‘মস্ত বড় ভুল ছিল রে তোর চোখে চোখ রাখা,
তোর পরাণে বাইন্দা পরান সুখের ছবি আঁকা।
বুকের ভিতর থাকতো যদি আরো একটা মন,
তোরে ভুইল্লা নতুন কইরা সাজাইতাম জীবন।
এমন কথার ভিত্তিতে ‘ভুল’ গানটির সুর বেঁধেছেন পিজিত নিজেই। গানটি প্রকাশ হতেই নেট দুনিয়া থেকে শুরু করে বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে।
গান সর্ম্পকে কন্ঠ শিল্পী পিজিত বলেন, কিছু দিন আগে আমার গ্রামের বাড়িটি দুর্বৃত্তরা পুড়িয়ে দিয়েছিল। গ্রামে থাকা সেই কঠিন সময়ে আমি এই ‘ভুল’ গানের সুর বেঁধেছি। গানটি প্রকাশ হওয়ার পর গতকাল থেকে ভালো রেসপন্স পাচ্ছি। আশা করছি সামনে আরো সাড়া মিলবে। আশা করি এই গান আমার বাকী সব গানকে ছাড়িয়ে যাবে।
তিনি আরও বলেন, ভুল” গানের পুরো টিমের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। বিশেষ করে পপি মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার ‘রাসেল মাল’ এর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ । এই গানের মিউজিক ভিডিওতে অভিনয় করেছেন এই সময়ের সুপরিচিত মডেল দেব ও কবিতা, এবং বিশেষ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন প্রতিভাবান গীতিকার তরুণ মডেল এম এ আলম শুভ।
ঢাকার বিভিন্ন লোকেশানে এই গানের পুরো মিউজিক ভিডিও দৃশ্য ধারন করেছেন শেখ সাদী। রং বিন্যাস সম্পাদন করেছেন এস কে জয়, পোস্টার ডিজাইন করেছেন পারভেজ, মেক আপে ছিলেন ছোট্ট পলাশ এবং ডিরেকশানে ছিলেন “পি এম রেকর্ডস”।
পপি মাল্টিমিডিয়ার কর্নধার রাসেল মাল বলেন,
শুদ্ধ বাংলা গান নিয়ে কাজ করছি। ভালো গান শ্রোতা দর্শকদের উপহার দেওয়াই আমাদের মূল লক্ষ্য, এবং উদ্দেশ্য। “ভুল” গানের গায়ক পিজিত মহাজনকে নিয়ে আমাদের সামনে অরোও অনেক পরিকল্পনা আছে। তাকে নিয়ে আরো কয়েকটি গান তৈরী করবো আমরা। তিনি আমাদের সেই সাপোর্টটুকু দিবে বলে আমরা আশা রাখি।
এদিকে কন্ঠ শিল্পী পিজিতের গাওয়া বেশ কিছু গান প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। সেগুলো হলো, জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত সুরকার প্লাবণ কোরেশীর লেখায় ‘পাগলী’, এম এ আলম শুভর ‘গল্প’, সাইফুল বারীর লেখায় ‘পোড়ামন’, অনুপম চৌধুরীর লেখায় ‘সঁই’, প্রবীর দত্ত সাঁজুর লেখায় ‘বৃষ্টির গান’। তাছাড়া এন টিভি (২০১৯) সিলন সুপার সিঙ্গার দীপ্তি ও কন্ঠ শিল্পী মুনের সাথে রয়েছে কয়েকটি দ্বৈত গানসহ সেসাথে নবাগত গীতিকার নাইমুল ইসলাম অপুর লেখা ‘সুজন সখি’ শিরোনামে ২ ডজন গান প্রকাশের অপেক্ষায় আছে।
অন্যদিকে পিজিতের সুরে শেখ নজরুল লেখায় একটি গান গেয়েছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সমরজিৎ রায়। ইতোমধ্যে পিজিত গেয়েছেন জনপ্রিয় গীতিকার অনুরুপ আইচের লেখায়, ‘শুদ্ধ সংগীতের পূজারী’ এবং শেখ নজরুলের লেখায়  দেশের কিংবদন্তী সংগীত শিল্পী আবিদা সুলতানা, রফিকুল আলম, ফরিদা পারভীন, কিরন চন্দ্র রায়, চন্দনা মজুমদার ও ফাহমিদা নবীর সাথে দেশের গানে অংশ নিয়েছেন পিজিত।
এছাড়া জি সিরিজের ব্যানারে রন্টি-পিজিতের দ্বৈত গান ‘তোমার পাগল’, ‘মায়া’, ‘মায়ের ডায়েরি’সহ বেশ কিছু জনপ্রিয় গান দর্শকদের উপহার দিয়েছেন এই কন্ঠশিল্পী পিজিত মহাজন।
প্রসঙ্গত, পিজিত মহাজন চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ১নং রাজানগর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ঠান্ডাছড়ি গ্রামের স্বপন মহাজনের দ্বিতীয় সন্তান। ২০১৫ সালে ব্যান্ড চাটগাঁ’র ভোকাল হিসেবে তার পরিচিতি ছড়িয়ে পড়ে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে।