ডিম ও মুরগির দামে আগুন

সাইফুল্লাহ (মোহাম্মদপুর প্রতিনিধি) :

গতকাল থেকে ব্রয়লার, দেশী ও খাসি মুরগির দাম এক লাফে ২৫ থেকে ৫০ টাকা বেড়েছে৷ ব্রয়লার মুরগির দাম খুচরা ১৫৫ টাকা যা পূর্বে ছিল ১৩০ টাকা, খাসি মুরগি ৩৪০ টাকা বিক্রি হচ্ছে যা পূর্বে ছিল ২৯০ টাকা।  রাজধানীর ঢাকা উদ্যানে মনির মিয়ার বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়।
এ বিষয়ে কথা বললে এক মুরগি ব্যবসায়ী রবিন বলেন- ডিলাররা দাম বাড়ালে আমাদের কিছু করার নাই। আমরা তো ক্ষতিতে বিক্রি করবো না। আবার ডিলারদের জবাব উৎপাদনের চেয়ে চাহিদা বেশী থাকায় দামটা একটু বেশী। তবে এটা কতদিন থাকবে এটা জানি না। হয়ত কিছু দিন এ দামে অথবা আরোও বাড়ার সম্ভাবনা আছে।
মুরগির সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ডিমের দাম।  পিচ প্রতি ডিমের দাম ৯টাকা থেকে ৯টাকা২০ পয়সা গুনতে হচ্ছে ক্রেতাদের। এতে ক্রেতাদের মুরগি ও ডিম কিনতে অনাগ্রহ জন্মাচ্ছে।

বিশেষজ্ঞদের মত এভাবে যদি মুরগি ও ডিমের দাম বাড়তে থাকে তাহলে সাধারণ মানুষ আমিষের ঘাটতিতে ভুগবে এতে কোন সন্দেহ নেই। করোনাকালীন সময়ে সাধারণ মানুষের আমিষ জাতীয় ভিটামিন খুবই প্রয়োজন। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো, শরীরের বৃদ্ধি সাধন সহ আরোও অনেক বিষয়ে আমিষ নামক ভিটামিন সাহায্য করে।
গত বছর করোনায় মুরগি ব্যবসায়ীরা বিরাট ক্ষতির সম্মুখীন হয়।এমনকি সোস্যাল মিডিয়ায় মুরগি বাচ্ছা ফেলে দেয়া, ডিম নষ্ট করা ইত্যাদি ভিডিও ভাইরাল হয়। কিন্তু এ বছর চাহিদা ভালো থাকায় এ ক্ষতি থেকে কিছুটা উত্তরণের উপায় আসছে।