জয়পুরহাটে ছাত্র ফ্রন্টের ১১ সদস্য বিশিষ্ট কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা 

রাশেদ ইসলাম
জেলা প্রতিনিধি জয়পুরহাট:
ঐক্য, সংগ্রাম ও প্রগতি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের মূলনীতি শিক্ষার বেসরকারিকরণ- বাণিজ্যিকীকরণ- সাম্প্রদায়িকীকরণ শিক্ষা- সংস্কৃতি ও মনুষ্যত্ব রক্ষার আন্দোলনকে বেগবান করার লক্ষ্যে জয়পুরহাট জেলা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ১১ সদস্য বিশিষ্ট কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা করা হয়।
শনিবার ( ২৭ নভেম্বর) বেলা ১১ টায় বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ জয়পুরহাট জেলা পার্টি কার্যালয়ে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জয়পুরহাট জেলা কমিটিতে আশরাফুল ইসলাম কে আহ্বায়ক ও সনজিৎ পাল কে সদস্য সচিব করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটি ঘোষণা করেন জেলা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাশেদ।
আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা বাসদ সদস্য সচিব সামিউল ইসলাম বাবু,  সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি ছাত্রনেতা ধনঞ্জয় বর্মন, জেলা বাসদ সদস্য উৎপল দেবনাথ, জেলা ছাত্র ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুজ্জামান রাশেদ প্রমূখ।
ছাত্রনেতা ধনঞ্জয় বর্মন বলেন, পুঁজিবাদী সমাজ ব্যবস্থায় শিক্ষাকে পণ্যে পরিণত করা হয়েছে। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরে শিক্ষার মৌলিক অধিকার রাষ্ট্র দিতে পারে নি। শিক্ষাঙ্গনে শিক্ষার গণতান্ত্রিক পরিবেশ নেই। যারাই ক্ষমতায় আসে তাদের ছাত্র সংগঠন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে সন্ত্রাসী জায়গায় পরিণত করে। ফলে টাকা যার শিক্ষা তার এই নীতি পাল্টাতে হলে এবং শিক্ষার মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হলে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের আন্দোলন কে বেগবান করতে হবে।
কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির সদস্য বৃন্দ:
১. মারুফ হোসেন
২. সাহাদত হোসেন
৩. সাগর পাল
৪. সাইদুল ইসলাম
৫. মুন্নি আক্তার
৬. শিভা আক্তার
৭.  সোহানুর রহমান
৮. মিজানুর রহমান
৯. মোরশেদুল ইসলাম।