আমতলীতে ৭টি অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৪ লাখ টাকা জরিমানা

 অলিউল্লাহ ইমরান, বরগুনাঃ 
বরগুনার আমতলী উপজেলার ৭টি অবৈধ ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত  ১৪ লাখ টাকা জরিমানা ও ড্রাম চিমনি অপসারণ করেছে বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তরের  নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নওরিন হক। আজ রবিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
 
বরিশাল পরিবেশ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, বিভিন্ন সময়ে জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় সংবাদ দেখতে পেয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ অবৈধ ইটভাটা বন্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার  নির্দেশ দেয়। ওই নির্দেশ অনুযায়ী আজ রবিবার (১৬ জানুয়ারি) আমতলী উপজেলার ৭টি অবৈধ ইটভাটায় ভ্রাম্যমাণ  আদালত পরিচালনা করে। এ সময় প্রতিটি ইট ভাটাকে ২ লক্ষ টাকা করে মোট ১৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
 
জরিমানাকৃত ইটভাটাগুলো হলো উপজেলার চাওড়া ইউনিয়নের তালুকদার বাজার এলাকায় এইচআরটি ব্রিকস, একই ইউনিয়নের মোস্তফাপুর এলাকার এমএসবি ব্রিকস, আমতলী সদর ইউনিয়নের মহিষডাঙ্গা গ্রামের এমসিকে ব্রিকস, কুকুয়া ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর এলাকায় আরএমকেএস ব্রিকস, রায়বালা এলাকায় এডিবি ব্রিকস, একই এলাকার মৃধা ব্রিকস, খাকদান এলাকায় মেসার্স ফাইব স্টার ব্রিকস নামে মোট ৭টি ইটভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এছাড়া ওই ইটভাটা গুলোর ড্রাম চিমনি ভেঙ্গে ফেলাসহ ইটভাটার সকল প্রকার কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 
 
পরিবেশ অধিদফতর বরিশাল ও ভ্রাম্যমান আদালতে বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নওরিন হক বলেন, বিভিন্ন সময়ে জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় সংবাদ দেখতে পেয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ অবৈধ ইটভাটা বন্ধের নির্দেশ দেয়। ওই নির্দেশ অনুযায়ী আজ ৭টি অবৈধ ইটভাটায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১৪ লাখ টাকা জরিমানা করাসহ ড্রাম চিমনি ভেঙ্গে ফেলে ইটভাটার সকল প্রকার কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।