লালমনিরহাটে বাড়তি নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত

মিজানুর রহমানঃ

লালমনিরহাটে বাড়তি নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সকল মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হলো।বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে মৃত্যূবরন কারী ও আক্রান্তদের সুস্থ্যতা কামনা করে নামায শেষে মোনাজাত করা হয়।

০১লা আগষ্ট শনিবার সারা দেশের ন্যায় ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্য পরিবেশে,লালমনিরহাটে ঈদ-উল-আযহার নামায অনুষ্ঠিত হলো।বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ঠেকাতে এবারো ঈদের নামায ঈদগাহের পরিবর্তে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে।জঙ্গি হামলার আশংকায় নেওয়া হয়েছিল বিশেষ সতর্কতা মূলক ব্যাবস্থা,প্রতিটি মসজিদের সামনে পুলিশ এবং র্র্যাবের টহল জোরদার করা হয়েছিল।

সকাল ০৮টায় বেশির ভাগ মসজিদে ঈদ-উল-, আযহার নামাজের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়, অধীকাংশ মসজিদে জায়গা সংকুলান না হাওয়ায় একাধিক জামাত অনুষ্ঠিত হয়।লালমনিরহাট শহড়ের বিডিআর রোড কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, সাপটানা বাজার নেছারিয়া মসজিদ, রেলওয়ে ষ্টোর পাড়া মসজিদ,পুলিশ লাইন মসজিদ, ভোকেশনাল মসজিদ,রেল ওয়ে স্টেশন মসজিদ, গোশলা বাজার মসজিদ,বাবুপাড়া মসজিদ,পুরান বাজার মসজিদ,গোশলা বাজার মসজিদ,নিউ কলোনি হাফেজিয়া মসজিদ,থানা পাড়া মসজিদ, জুম্মাপাড়া মসজিদ,বর্ডার গার্ড মসজিদ,খোর্দ্দ সাপটানা মসজিদ,বসুন্ধরা মসজিদ মদিনা পাড়া মসজিদে সকাল০৮টায় প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়।আধা ঘন্টা পর পর দ্বিতীয় ও তৃতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

নামায শেষে বৈশ্বিক মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যূ বরনকারী ও করোনায় আক্রান্ত জেলা আওয়ামিলীগের সাধারন সম্পাদক জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃমতিয়ার রহমান ও তার পরিবার সহ সকলের সুস্থ্যতা কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা,লালমনিরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন শুভেচ্ছা বানী দেন।