ভোলায় ইউওনোর বিরুদ্ধে আদালতের করা সুয়োমট মামলা প্রত্যাহার

ভোলা প্রতিনিধি :

ভোলার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক বোরহানউদ্দিনের ভারপ্রাপ্ত ইউএনও’র বিরুদ্ধে এখতিয়ার বহির্ভূত কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রত্যাহার ও সুয়োমোটো নথির কার্যক্রম খারিজ করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ কর্তৃক(সুয়োমোটো ০১/২০২০ (বোর)বাতিল করা হয়েছে।গত বৃহস্পতিবার(১৬ এপ্রিল) ভোলার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক সুয়োমোটো ও নোটিশ জারির বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে আলোচিত হয়।

ভোলার বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ কর্তৃক ঘোষিত আদেশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার(১৫ এপ্রিল)বোরহানউদ্দিনের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক পরিচালিত মোবাইল কোর্টটি তার নিয়মিত প্রশাসনিক কাজ এবং code of criminal procedures এর ১৯০ ধারা অনুযায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কর্তৃক কৃতকার্য অত্র আদালত কর্তৃক ব্যাখ্যা তলবের সুযোগ না থাকায় সুয়োমোটোটি বাতিল ও জারিকৃত নোটিশটি প্রত্যাহার করা হল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. বশির গাজী জানান, গত ১৫ এপ্রিল সকালে গোপন সংবাদের প্রেক্ষিতে কুতুবা ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় তিনি ৯ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করেন। খাদ্য অধিদপ্তরের সরকারি বস্তায় চাল রাখার কারণে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২-এর ৩৯ ধারা মতে দূর্যোগের সময় সরকারি চালের অপব্যবহার করায় আব্দুল মান্নানকে ২৫ হাজার এবং ছেলামতকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।তিনি আরও জানান, উদ্ধারকৃত চাল ওএমএসের চাল নয়, এটি দৌলতখান উপজেলার দূর্যোগের ঘর নির্মাণ কাজের মাটি ভরাটের জন্য বরাদ্দকৃত চাল, যা জরিমানাকৃত ব্যক্তিদ্বয় ক্রয় করে এনে সরকারি বস্তায় সংরক্ষণ করেন।