বরগুনায় ট্রাক শ্রমিকদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ : লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে পুলিশ

অলিউল্লাহ্ ইমরান, বরগুনা:
বরগুনায় অফিস দখল নিয়ে ট্রাকশ্রমিকদের দুই সংগঠনের পূর্ব শত্রুতার জেরে মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।
শনিবার (২১ মে) দুপুর থেকে দুটি সংগঠনের শ্রমিকরা শহরের টাউনহলে মুখোমুখি অবস্থান নেন। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করেছে জেলা পুলিশ।
স্থানীয়রা জানান, দুপুরে বরগুনার টাউনহল এলাকায় বেসিক ট্রেড ইউনিয়ন ও আন্তজেলা ট্রাকশ্রমিকদের দুটি গ্রুপ মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে সংঘর্ষে জড়ান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে দুই গ্রুপকে ছত্রভঙ্গ করে দেয় পুলিশ।
বরগুনা আন্তজেলা ট্রাকশ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন বরগুনা পৌরসভার প্যানেল মেয়র রইসুল আলম রিপন। আর বেসিক ট্রেড ইউনিয়ন বরগুনা জেলা শাখার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম।
বরগুনা আন্তজেলা ট্রাকশ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক শ্রমিক নেতা মঞ্জুরুল আলম জন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বরিশাল থেকে বেসিক ট্রেড ইউনিয়ন বরগুনা জেলা শাখার নামে একটি সংগঠন নিয়ে আসেন। ওই সংগঠনের সভাপতি হিসেবে তিনি আন্তজেলা ট্রাকশ্রমিক ইউনিয়ন অফিস দখলে নিতে চায় এবং প্রতিনিয়ত চাঁদাবাজি করছেন। এ নিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে।
অপরদিকে বেসিক ট্রেড ইউনিয়নের সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম পাল্টা অভিযোগ করে বলেন, গত বছরের শুরুতে আন্তজেলা ট্রাকশ্রমিক ইউনিয়নের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে আমার কাছে আসে। আমি শ্রমিকদের স্বার্থে বেসিক ট্রেড ইউনিয়নের দায়িত্ব নিয়ে শ্রমিকদের সংগঠিত করে চাঁদা থেকে রক্ষা করেছি।
তিনি আরও বলেন, অফিস দখলের মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে এর আগেও আমাদের শ্রমিকদের উপর তারা হামলা করেছে। উল্টো তারা বহিরাগত সন্ত্রাসীদের সহায়তায় আমাদের অফিস দখল করেছে। আজ আবারও বহিরাগত সন্ত্রাসীদের দিয়ে জনের নেতৃত্বে  নিরীহ শ্রমিকদের উপর আতর্কিত হামলা হয়েছে। হামলায় তিন জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন।
বরগুনার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর মল্লিক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।