পিরোজপুরের নাজিরপুরে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ॥ আহত ৭

পিরোজপুর প্রতিনিধি:

পিরোজপুরের নাজিরপুরে হাঁস চুরি হওয়া নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ৭ জন গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার রুহিতলা বুনিয়া গ্রামে। আহতরা রবিবার (১৬ আগষ্ট) রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন।
এ হামলায় এক পক্ষের সোবাহান কাজী (৬৫), তার স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৫৫), পুত্র মাহাতাব কাজী (৪০) ও পুত্র বধু মাকসুদা বেগম (৩০) ও অন্য পক্ষের জালাল কাজী (৬০), ভাগ্নে বাবুল শেখ (৪০) ও ভাইর বৌ হাসিনা বেগম (৫০) আহত হয়েছেন। আহতরা একই বাড়ির।
আহত সোবাহান কাজীর পুত্র আলতাফ কাজী জানান, গত শনিবার বিকালে আমার ভাই মাহাতাব কাজীর ৩টি হাঁস চুরি হয়। বিষয়টি জানতে আমার ভাই জালাল কাজীকে জিজ্ঞাস করলে তিনি আমার ভাবী ও অন্যান্যদের সাথে খারাপ আচারন করে। এ নিয়ে আমার মা পরে দিন রবিবার রাতে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্যের কাছে নালিশ দিতে যাওয়ার সময় আমার মা’র উপর প্রথম হামলা চালায়। পরে আমার বাবা সহ ভাইও ভাবী সেখানে গেলে তাদের ৪ জনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।
হামলায় আহত প্রতিপক্ষের জালাল কাজীর কন্যা আসমা বেগম জানান, তাদের বাড়িতে গিয়ে হাঁস চুরির অভিযোগ দিয়ে হামলা চালিয়ে তার পিতা সহ ৩ জনকে পিটিয়ে আহত করে।
থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোঃ মুনিরুজ্জামান মুনির জানান, এ ঘটনায় কোন অভিযোগ পাই নি।