নেত্রকোণায় বখাটের দায়ের কোপে স্কুলছাত্রী জখম

সোলায়মান হোসাইন রুবেল, নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ
নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে বখাটের দায়ের কোপে তাছলিমা আক্তার (১৬) নামে এক স্কুল ছাত্রী জখম হয়েছে। তার কপালে সেলাই লেগেছে পাঁচটি। হামলাকৃত বখাটের নাম মুন্না মিয়া(২০)।
শুক্রবার বিকেলে উপজেলার রামজীবনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
তাছলিমা রামজীবনপুর গ্রামের শফিকুল  ইসলামের মেয়ে। সে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী।
অভিযুক্ত মুন্না মিয়া একই গ্রামের তাইজ্জুত মিয়ার ছেলে।
ঘটনার পর তাছলিমাকে মোহনগঞ্জ উপজেলা  স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
মোহনগঞ্জ উপজেলা  স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শহীদুল্লাহ জানান, তাছলিমার কপালে চোখের উপরে গভীর কাটা রয়েছে। তাতে পাঁচটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। এছাড়া শঙ্কা এড়াতে এক্সরে করা হয়েছে।
স্কুলছাত্রীর মা শামছুন্নাহার বলেন, মুন্না এলকার একজন চিহ্নিত বখাটে।  আমাদের ছাগলটি মুন্নাদের ধান খেতে যাওয়ায় এটিকে ধরে নিয়ে বেধে রাখে। আমার মেয়ে ছাগল নিয়ে আসতে গেলে মুন্না তাকে প্রথমে লাটি দিয়ে পেটায়। পরে এক পর্যায়ে দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এ ঘটনায়  থানায় অভিযোগ দেওয়া হচ্ছে।
চেষ্টা করেও অভিযুক্ত মুন্নার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
মোহনগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম বলেন, ওই ছাত্রীর বাবা-মা থানায় অভিযোগ দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। অভিযোগ পেয়ে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।