নাটোরে বাস খাদে পড়ে মা-মেয়ে নিহত : আহত ১০

আসাদুল ইসলাম, বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধিঃ

নাটোরের বড়াইগ্রামে চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে যাবার পথে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে মা ও মেয়ে নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মেয়ে জামাইসহ আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন। সোমবার নাটোর-পাবনা মহাসড়কের গোধড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন-পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার নড়াইখালি গ্রামের আব্দুল মান্নানের স্ত্রী হুসনা বেগম (৫০) এবং তার মেয়ে ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি গ্রামের শামীম হোসেনের স্ত্রী রোজিনা খাতুন (৩২)। তারা নাটোর ব্যাপ্টিষ্ট মিড মিশন হাসপাতালে গলায় টিউমার জনিত অপারেশন পরবর্তী চিকিৎসা নিতে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।
বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খন্দকার শফিকুল ইসলাম জানান, সোমবার সকালে গোধড়া এলাকায় পাবনা থেকে ছেড়ে আসা রাজশাহীগামী যাত্রীবাহী বাস চঞ্চল পরিবহন (পাবনা ব-১১-০১২৩) একটি ট্রাককে ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে জোৎস্না বেগম ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে রোজিনা বেগমকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। এ ঘটনায় নিহত রোজিনা বেগমের স্বামী শামীম হোসেন (৩৫) সহ কমপক্ষে ১০ জনকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত বাসটি উদ্ধার করে বনপাড়া হাইওয়ে থানায় রাখা হয়েছে।