নওগাঁর ধামইরহাট প্রেসক্লাবসহ ১০ প্রতিষ্ঠান লকডাউন ঘোষণা

নওগাঁ সংবাদদাতা :

নওগাঁর ধামইরহাট প্রেসক্লাব ভবনসহ ১০টি প্রতিষ্ঠানকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। উপজেলা সদরের একটি মার্কেটের এক ব্যবসায়ী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় আজ মঙ্গলবার (৩০ জুন) সকাল থেকে উপজেলা প্রশাসন ওই মাকের্টের প্রতিষ্ঠানগুলো লকডাউন করার নির্দেশ প্রদান করে। এতে করে উপজেলা প্রেসক্লাব,মুক্তিযোদ্ধা সংসদ,ধামইরহাট ক্লাব এবং মার্কেটের দোকানগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।
জানা গেছে,ধামইরহাট বাজারের প্রাণকেন্ত্র ধামইরহাট বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ধামইরহাট ভবন’নামে তিনতালা একটি ভবন রয়েছে। এই ভবনের নিচতলায় মার্কেটের শুভ গার্মেন্টস এর স্বত্বাধিকারী আলহাজ্ব মো.আব্দুর রউফ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। এর প্রেক্ষিতে প্রশাসন ধামইরহাট ভবন লকডাউন করে দেয়। এ ভবনের নিচতলায় মার্কেটের ৫টি দোকান,দ্বিতীয় তলায় ধামইরহাট প্রেসক্লাব,ধামইরহাট ক্লাব এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অফিস,তৃতীয় তলায় বঙ্গবন্ধু পাঠচক্র লকডাউন করে দেওয়া হয়। আবার করোনা আক্রান্ত ব্যবসায়ী আব্দুর রউফের সংস্পর্শে আসার কারণে মঙ্গলবার দুপুর থেকে পাশের সরদার বস্ত্রালয়কেও লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে এবং এর স্বত্তাধিকারী আলহাজ্ব সাইফুল ইসলামকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।
এদিকে জানা গেছে, চলতি মাসের ৯ জুন ব্যবসায়ী আব্দুর রউফসহ অপর ৪ ব্যবসায়ী মিলে মোকাম করার জন্য একসাথে ঢাকায় গমন করেন। সেখান থেকে ফিরে আসার পর তার নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়। ল্যাব থেকে নমুনার পরীক্ষার ফলাফল সোমবার রাতে আসে। সেখানে ওই ব্যবসায়ীর নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়। এদিকে করোনা আক্রান্ত ব্যবসায়ী আব্দুর রউফের সংস্পর্শে আসা অপর ব্যবসায়ীদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লকডাউন করা হয়েছে।
ধামইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আব্দুল মমিন বলেন,যারাই করোনা আক্রান্ত ব্যবসায়ীর সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরকে চিহিৃত করে নুমনা সংগ্রহ করে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। এছাড়া তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে বন্ধ করে দেওয়া হবে।