ঢাকা -৫ আসন এর আসন্ন সংসদ উপ-নির্বাচনের প্রস্তুতি ও আলোচনা সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

মাতুয়াইল বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে গতকাল ঢাকা-৫ আসনের আসন্ন সংসদ উপনির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনীত প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী মনিরুল ইসলাম মনু’র নির্বাচনী প্রস্তুতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘদিনের নির্বাসিত ওনির্যাতিত নেতাকর্মীদের মিলন মেলায় পরিণত হয় অনুষ্ঠানস্থল।

আগামী ১৭ অক্টোবর ঢাকা-৫ আসনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।
নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণার পর আওয়ামী লীগ প্রার্থী ঢাকা-৫ এর নৌকার মাঝি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কাজী মনিরুল ইসলাম মনুকে ঘিরে তৃণমূলের ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

প্রতিদিনই আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ এসে তাদের প্রাণপ্রিয় নেতা কে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করছেন।

মাতুয়াইলের নির্বাচনী প্রস্তুতি সভার সভাপতিত্ব করেন মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা লুৎফর রহমান খান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শান্তনুর খান শান্ত ।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মাওলানা ক্বারী মোঃ ইব্রাহিম খলিল।

অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকে যেসব নেতাকর্মী প্রয়াত হয়েছেন তাদের স্মরণে এবং তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দাঁড়িয়ে এক মিনিটের নীরবতা পালন করা হয়।

এসময় হাজারো নেতাকর্মীরা দাঁড়িয়ে পিনপতন নীরবতা পালন করেন।এতে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শান্তনুর খাঁন শান্ত ।বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন শাহাবুদ্দিন খান।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য মোঃ নুরুজ্জামান, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কাউন্সিল যাত্রাবাড়ী থানা কমান্ডার
বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন,দৈনিক রুপালী দেশ পত্রিকার সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক মনি, বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহনেওয়াজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনোয়ার হোসেন, বৃহত্তম ডেমরা থানার ৪০বছর আগের কমিটির ছাত্রলীগ নেতা লিটন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা দিদার, দলিল লেখক সমিতির সাবেক সভাপতি শামসুদ্দিন সহ অনেকে।

বেলা বাড়ার সাথে সাথে হাজারো নেতাকর্মীর উপস্থিতিতে মাতুয়াইল বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুম কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৭ নং ওয়ার্ড সভাপতি শাহ মোহাম্মদ ফয়সাল এবং সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন যুগম সাধারন সম্পাদক শরীফ আহমেদ এর নেতৃত্বে মিছিল আসে,৯ নং ওয়ার্ড সভাপতি মাসুদ একটি মিছিল নিয়ে আসেন,৬ নং ওয়ার্ড সভাপতি জিয়াউদ্দিন জিয়া,এবং সাধারণ সম্পাদক রাজিব মিছিল নিয়ে আসেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন যাত্রাবাড়ী থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হামিদুর রহমান তাকিশ, যাত্রাবাড়ী থানা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদুল হক, সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আক্তার হোসেন, ৭ নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার মমিনুল ইসলাম,সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার ভুট্টো, ক্রীড়া সংগঠক আজিজুর রহমান মিন্টু ,ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি মোজাফফর হোসেন, মাসুদ, মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ হুমায়ুন, দক্ষিণ পাড়ার আওয়ামী লীগ নেতা এক্স নটরডেমিয়ান শফিকুল আলম খান শিশু ,কৃষকলীগের যাত্রাবাড়ী থানার নেতা আনিসুর রহমান আনিস, মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৭ নং ওয়ার্ডের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন বেপারী সহ অনেকে।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দানকালে মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন

কান্নাবিজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন ঢাকা ৫আসনের মাটি ও মানুষের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী মনিরুল ইসলাম মনু দীর্ঘদিন রাজনীতির মাঠে থেকে তৃণমূলের রাজনীতি করে আসছে বিএনপি-জামাত জোট সরকারের আমলে সরকারবিরোধী আন্দোলনে তার ভূমিকা ছিল অপরিসীম।

তাকে হামলা-মামলার শিকার হতে হয়েছে তার বিরুদ্ধে সেই সময়ে ১৬টি রাজনৈতিক মামলা দায়ের হয়েছিল ।তিনি অত্যন্ত কর্মীবান্ধব নেতা ।তিনি ছাত্রজীবনে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ১৯৬৩ সালে আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলায় যখন বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করা হয়েছিল সেই সময়ে জগন্নাথ কলেজের ছাত্র থাকা অবস্থায় বঙ্গবন্ধুর মুক্তির আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন।

তিনি একজন কর্মী বান্ধব নেতা। তাকে মনোনয়ন দেয়ায় আওয়ামী লীগ সভাপতি দেশরত্ন বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান শান্ত ।আগামী ১৭ অক্টোবর ২০২০ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী মনিরুল ইসলাম মনু ভাই কে জয়যুক্ত করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।