ডেমরায় প্রেমিককে দিয়ে স্বামীকে গলা কেটে হত্যাচেষ্টা : স্ত্রী গ্রেফতার

সালে আহমেদ, ডেমরাঃ

রাজধানীর ডেমরায় নিজের স্বামীকে প্রেমিকের দ্বারা হত্যাচেষ্টা মামলায় স্ত্রী প্রিয়াঙ্কা গ্রেফতার। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ডেমরার অামুলিয়া মডেল টাউন এলাকায় প্রেমিককে ডেকে এনে স্বামীকে মারধর ও হত্যাচেষ্টার এ অভিযোগ উঠেছে নারীর বিরুদ্ধে।

জানা গিয়েছে, স্বামী সেলিম হোসেন (৩০) ডেমরার থাকেন। কর্ম সূত্রে টিউশনি করে জীবিকা নির্বাহ করেন।গত দুই মাস আগে তার সঙ্গে বিয়ে হয় প্রিয়াঙ্কার। অভিযোগ আছে বিবাহের পূর্বে একাধিক প্রেমিকের সাথে সম্পর্ক রয়েছে প্রিয়াঙ্কার।

গত ১১ নভেম্বর (বুধবার) সেলিম হোসেন তার স্ত্রীর
পূর্ব পরিকল্পনায় ঘুরতে বের হন এই নব দম্পতি তাতেই ঘটে গেল পূর্বপরিকল্পিত লঙ্কাকার্ন্ড।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভুক্তভোগীর চাচাতো ভাই জসিম উদ্দিন বলেন, আমার চাচাতো ভাই সেলিম হোসেন ডেমরার পাইটি থাকে। গত দুই মাস আগে প্রিয়াঙ্কাকে বিয়ে করে।গত বুধবার মাগরিবের পর আমার চাচাতে ভাইয়ের স্ত্রী তার সাবেক প্রেমিকদের দ্বারা যোগসাজশে ও পরিকল্পনা মাফিক হত্যাচেষ্টা চালায়। চাচাতো ভাইয়ের স্ত্রী তার স্বামীকে ঝাপঠে ধরলে পরক্ষণেই তার সাবেক প্রেমিক তার গলায় চুরি দিয়ে পোছাতে থাকে এবং পেটে চুরি ডুকিয়ে দিলে আমার ভাই আত্নরক্ষার জন্য দৌড়ে পালিয়ে গিয়ে স্থানীয় পুলিশের সাহায্য নেয়।গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছিল। আমরা এ ঘটনার উপযুক্ত বিচার দাবি করছি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডেমরা থানার এস আই মোঃ আলমগীর জানান, এই ঘটনায় ডেমরা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ভিকটিমের পরিবার। তার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে ডেমরা থানার পুলিশ। স্ত্রী প্রিয়াঙ্কার নির্দেশে কারা সেলিম হোসেনকে মারধর করল তার খোঁজে নেমেছেন তদন্তকারীরা। পুলিশ বুধবার প্রিয়াঙ্কাকে গ্রেফতারের পর হত্যাচেষ্টার রহস্য উদঘাটন শুরু করেছে। গতকাল বুধবার প্রিয়াঙ্কাকে আদালতে সোপর্দ করলে ১৬৪ এ জবানবন্দিতে নিজের সম্পর্ক্তার কথা স্বীকার করেন।