চরফ্যাশনে কৃষিখাতের সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত

এআর সোহেব চৌধুরী চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি:
“কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে স্থানিয় কৃষিখাতের সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে চরফ্যাশনে এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৬অক্টোবর) বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কোস্ট ট্রাস্ট ও এপিএফপি প্রকল্পে স্থানিয় পর্যায়ের কৃষি সমস্যা সংক্রান্ত পর্যালোচনা ও এর কর্মকৌশল নিয়ে আলোচনা করেন কৃষক ও কৃষি সংক্রান্ত সংশ্লীষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।
কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন, কোস্ট ট্রাস্টের ভোলা সহকারি পরিচালক রাশিদা বেগম,সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার,কৃষি কর্মকর্তা আবু হাসনাইন কোস্ট ট্রাস্টের একাউন্টস অব এডমিন ইব্রাহীম, এপিএফপি প্রকল্প মেন্যাজার, ট্যাকনিক্যাল সুপারভাইজার আতিকুর রহমানসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকবৃন্দ।
কোস্টাল ফার্মার এসোসিয়েশনের সভাপতি আবদুস সাত্তার ফারুকের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তারা বলেন, উপজেলার মাদ্রাজ,আসলামপুর,হাজারিগঞ্জ, বিচ্ছিন্ন চর কুকরি-মুরিসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের বেড়িবাঁধের স্লুইসগেট অব্যবস্থাপনার মাধ্যমে চলমান থাকায় চাষাবাদের জমিতে নদী ও সাগরের লবনাক্ত পানি প্রবেশ করায় কৃষকদের ফসল ফলাতে সমস্যা হচ্ছে।
এছাড়াও উপজেলায় বিষ মুক্ত সবজি আবাদ করলেও বাজারের পাইকারি আড়ৎদারদের সিন্ডিকেটের ফলে কৃষক শ্রেণী ন্যায্য মূল্যে তা বিক্রি করতে পারছেনা। কৃষকরা বিষ মুক্ত ও নিরাপদ সবজি বিক্রি করার জন্য একটি নির্দিষ্ট নিরাপদ সবজির হাট বসানোর জন্য দাবি করেন।
অন্যদিকে উপজেলার পৌরসভাসহ বিভিন্ন ইউনিয়নে সরকারি খাল ও জলাশয় খননের অভাবে এবং বিভিন্ন জটিলতায় ও প্রতিবন্ধকতার কারণে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে অতি বৃষ্টি ও বন্যার পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় পুকুর,খামার,মৎস্য ঘের ডুবে যায়। যার ফলে কৃষকের ক্ষতি হচ্ছে।
কৃষকদের সমস্যা সমাধানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন উর্ধ্বোতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন।