গোসাইরহাটে ননদের বাড়িতে বেড়াতে এসে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শরীয়তপুর প্রতিনিধ :
(২ আগস্ট সোমবার) ডামুড্যা উপজেলার
বড় সিধিলকুড়া থেকে গতকাল বিকেলে শশুরের সাথে বেরাতে এসে আজ সকালে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন, তারা বেগম (১৮) নামের এক গৃহবধূ। শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলার ইদিলপুর ইউনিয়নের ধীপুর গ্রামে ননদের বাড়িতে এসে ফ্যানের সাথে পাওয়া গেলো তার ঝুলন্ত লাশ।
নিহতের শশুর হাজী মোঃ গিয়াসউদ্দিন বলেন কালীখোলা ধীপুর গ্রামে ননদের স্বামী মিজানুর রহমান পেদা, পিতা ছয়াব উদ্দিন পেদা বাড়িতে গতকাল আমরা বেরাতে আসি কিন্তু আজ সকালে ১০:৩০ মিনিটে পাশের রুমের ভিতর থেকে ছিটকেল আটকানো দেখতে পেয়ে তারপর দরজা ভেঙে ঘুমানোর খাটে চেয়ারের উপর ফ্যানে সাথে উড়না দিয়ে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় ঐখান থেকে উদ্ধার করে হাসপাতাল নিয়ে যাই।
গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার মোঃ ইসমাঈল হোসেন সরকার তাকে  মৃত ঘোষণা করেন।
নিহতের বাবা আলমগীর ফকির ডামুড্যা উপজেলার কনেশ্বর ইউনিয়নের সৈয়দ বোস্তা গ্রাম
তিনি জানান ডামুড্যা উপজেলার সিধিলকুড়া ইউনিয়নে ৮ নং ওয়ার্ডে  হাজী মোঃ গিয়াসউদ্দিন এর পুত্র মোঃ ফয়সাল (২৬) নামের সাথে ৮ মাস আগে বিয়ে হয় কিন্তু বিয়ের পর থেকে স্বামীর সাথে বনিবনা ছিলো না বলে জানান।
ঘটনাস্থলে গোসাইরহাট থানা অফিসার ইনজার্জ মোল্লা সোয়েব আলী তদন্ত করছেন। লাশ ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।