গাছের সাথে এ কেমন বর্বরতা!

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি :

মানুষের সাথে মানুষের শত্রুতা থাকে কিন্তু গাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা!! আবেগাপ্লুত কন্ঠে বলছেন ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার আব্দুল্লাহপুর ৩নং ওয়ার্ড মাতাব্বর বাড়ির ইউসুফ মাতাব্বর। তিনি বলেন, মাত্র ২ শতাংশ জমিতে কয়েকবছর পূর্বে কিছু মেহগনী গাছের চাড়া রোপন করি। চাড়াগুলো বড় হয়ে উঠলে আমাদের ওই ২শতাংশ জমি দখল করার পায়তারা চালায় প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসী বাহিনী। কিন্তু গাছগুলো বাধা হয়ে দাড়ায়। আর তাই দিনে দুপুরে বাগানের প্রায় ৪২টি মেহগনী গাছের চাড়া কেটে নেয় প্রতিপক্ষগ্রুপের সন্ত্রাসীরা। অভিযোগকারী ইউসুফ মাতাব্বর আরও বলেন, শুক্রবার (১৪ আগস্ট) সকালে প্রতিপক্ষ মুসলিম মাতাব্বর ও তার ছেলে আকবর মাস্টারসহ সন্ত্রাসী দল এসে আমার বাগানের সকল গাছগাছালী কেটে আমাদের ওই দুই শতাংশ জমি জোর জবর দখলের চেষ্টা করে। এসময় আমাদের স্বজনরা এসে বাধা দিলে দেশীও ধারালো অ¯্র দিয়ে আমাকেসহ মারধর ও হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। এবিষয়ে আকবর মাস্টারকে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তবে তার মা আফরোজা বেগম বলেন, কিছুদিন পূর্বে তারা আমাদের গাছ কাটায় আমার স্বামী মুসলীম মাতাব্বর ক্ষোভে ইউসুফ মাতাব্বরদের গাছ কেটে ফেলে। আপনাদের কয়টি গাছ কেটেছে প্রশ্ন করলে আফরোজা বেগম বলেন, আমরা দেখিনি এবং সেখানে যাইনি। এদিকে ইউসুফ মাতাব্বর আকবর মাস্টারের গাছ কাটার বিষয়টি অস্বিকার করেন। এবিষয়ে চরফ্যাশন সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আরেফিন জানান, গাছকাটার বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি পুলিশ তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে।