ওয়াশিংটন দূতাবাসে জাতীয় শোক দিবস পালিত

যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। বাংলাদেশ দূতাবাস এ লক্ষ্যে বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকালে চ্যান্সেরি ও বাংলাদেশ হাউজে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করা, রাষ্ট্রদূত কর্তৃক রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ এবং বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের জন্য দোয়া।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এক মিনিট নীরবতা পালনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দূতাবাসের কর্মকর্তা, যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দীন, দূতাবাসের কর্মকর্তাবৃন্দ, ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

আলোচনা সভায় বক্তারা স্বাধীনতা বিরোধী কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় ঘটা নৃশংস হত্যাকাণ্ডের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পিছনে এসব কুচক্রী মহলের গভীর ষড়যন্ত্র ছিল এবং ভবিষ্যতে সকলকে একসাথে এ ধরনের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানানো হয়।

আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবনের ওপর নির্মিত প্রামাণ্যচ্চিত্র ‘মৃত্যুঞ্জয়ী বঙ্গবন্ধু’ প্রদর্শন করা হয়। সবশেষে রাষ্ট্রদূত চ্যান্সেরি ভবনে বঙ্গবন্ধুর ও বাংলাদেশ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।